রবিবার, ২১ Jul ২০২৪, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

        English
শিরোনাম :
চট্টগ্রামস্থ ছাগলনাইয়া সমিতির আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল বিশেষ অভিযানে ৬ গ্যাংয়ের ৩৩ জন আটক, দেশী অস্ত্র উদ্ধার ভালো আছেন খালেদা জিয়া ঈদকে ঘিরে জাল নোট গছিয়ে দিত ওরা কুতুব‌দিয়ায় নতুন জামা পেল ১৩৫ এতিম ছাত্র-ছাত্রী মানিকছড়িতে গণ ইফতার মাহফিল সীতাকুণ্ডে লরি চাপায় পথচারী যুবক নিহত সীতাকুণ্ডে পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু রামগড়ে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে বিজিবির পুরস্কার ও সনদ বিতরন লাইসেন্স বিহীন ফিলিং স্টেশন স্থাপন করে কার্ভাড ভ্যানে চলছে অবৈধ গ্যাস বিক্রি কাপ্তাই ব্লাড ব্যাংকের উদ্যোগে জনসচেতনতামূলক বিশেষ ক্যাম্পেইন জিম্মি নাবিকদের উদ্ধারে জাহাজের মালিকপক্ষের নতুন ঘোষণা
হালদা নদীতে ৩ মাসে ১৪টি ডলফিনের মৃত্যুঃ নদীর জীব বৈচিত্র্য চরম হুমকির মুখে

হালদা নদীতে ৩ মাসে ১৪টি ডলফিনের মৃত্যুঃ নদীর জীব বৈচিত্র্য চরম হুমকির মুখে

নিজস্ব প্রতিবেদক ও হাটহাজারী প্রতিনিধিঃ এশিয়ার বিখ্যাত এক মাত্র মৎস্যা প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদী। জৈববৈচিত্র সমৃদ্ধ এই নদীতে সাম্প্রতিক সময়ে একের পর এক মুত্যু হচ্ছে বিপন্ন প্রজাতির ডলফিন।

গত ২৭ শে ডিসেম্বার হাটহাজারী উপজেলার গড়দুয়ারা গচ্ছা খালি কালের মাষ্টার বাড়ির কালবাটের নিছে থেকে একটি মৃত ডলফিন উদ্ধার করে উপজেলা মৎস্যা অফিসের কার্যলয়ের লোকজন। এর র্পূবে গত ৩ জানুয়ারী গড়দুয়ারা স্লুইস গেইট এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় আরো একটি মুত ডলফিন।

বিগত ৩ মাসে হালদা নদীর বিভিন্ন এলাকায় আনুমানিক ১৪টি ডলফিনের মৃত হয়েছে। এই ডলফিনগুলো ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজ্যারভেশন অব নেচারের (আই,ইউ,সি,এস) লাল তালিকাভুক্ত বিপন্ন প্রজাতির স্তন্যাপায়ী জলজ প্রাণী বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আজহারুল ইসলাম।

তিনি বলেন বিগত কয়েক দিন র্পূবে উদ্ধার করা ডলফিন গুলো লম্বা প্রায় ৬ফুট। ওজন আনুমানিক ১০০ কেজি। এর পূর্বে যে ডলফিন উদ্ধার করা হয়েছে তার ওজন প্রায় ২মণের কাছাকাছি। উদ্ধার করা দুটি ডলফিনকে মাটি চাপা দেওয়া হয়।

এই সময় তিনি আরো বলেন, গত তিন মাসে হালদার মিষ্টি পানিতে প্রায় ১৪টি ডলফিন মৃত অবস্থায় ভেসে উটে। কি কারণে এই সব ডলপিন গুলোর মুত্যু হচ্ছে তাহা এখনো সুনিদ্রিষ্ট ভাবে কেউ বলতে পারছেনা। তবে যান্ত্রিক বড় বড় নৌযান চলাচল ও দখল দূষণ ড্রেজার মেশিন ব্যাবহার ও প্রপেলারে আঘাতে ডলফিন গুলো মারা যাচ্ছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

হালদা বিশেষজ্ঞদের মতে, ডলফিন গুলো বিপন্ন প্রজাতির জলজ স্তন্যপায়ী প্রাণী। এই সব ডলফিন মিঠাপানির ডলফিন। সারা বিশ্বে এ প্রজাতির ডলফিন ১০০০-১১০০টি আছে। হালদা নদীতে আছে ৩০০-৩৫০টি ডলফিন। যে গুলো নানা কারণে বিপদ সংকুলন।

হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরির কো অর্ডিনেটরের দায়িত্ব থাকা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণি বিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ডঃ মোঃ মনজুরুল কিবরিয়া এ প্রসঙ্গে প্রতিবেদককে জানান, বালু তোলার ড্রেজার ও যান্ত্রিক নৌকার প্রপেলারের সাথে লেগে আগাতের কারণে ডলফিন গুলোর মৃত্যু হতে পারে।

যার প্রমাণ ভেসে উটা ডলফিন গুলোর শরীরে আগাতের দাগ দেখা দেয়। নদী দখল ও দূষণের পাশাপাশি র্দীঘ কয়েক বছর ধরে হালদা নদী থেকে অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালি তোলা হচ্ছে। বালু পরিবহনে যন্ত্র চালিত বড় বড় বোট গুলো আইন অমান্য করে চলাচল করতে থাকে। এতে করে ডলফিনের পাশাপাশি বড় বড় রুই, কাতলা, মৃগেল, কালি বাউশ মাছের ও ক্ষতি হচ্ছে।

ফলে এটি মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্রের জন্য একটি অশনি সংকেত বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ সহ হালদা বিশেষজ্ঞরা। হালদা জীব বৈচিত্র যেকোনো মূল্যে রক্ষা করা প্রয়োজন। সকল প্রকার যান্ত্রিক নৌযান সহ নানান দূষণ থেকে হালদা নদীকে রক্ষা করতে হবে। তা না হলে অপুরনীয় ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

এই মৃত ডলফিন গুলো মাটি চাপায় রেখে পরে তার কঙ্কাল তুলে সংরক্ষণ করে গভেষনা করা হবে বলে হালদা বিশেষজ্ঞ ডঃ মনজুরুল কিবরিয়া জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Powered by : Oline IT